আজকে দুবাই সোনার দাম কত ২০২৪

পৃথিবীর মধ্যে দ্বিতীয় স্বর্ণের দেশ বলা হয় দুবাই কে। দুবাই থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রতিনিয়ত অনেক স্বর্ণ আমদানি করা হয়। সবচেয়ে বেশি দুবাইয়ে স্বর্ণ বিক্রি করে থাকে। বাংলাদেশে স্বর্ণের ব্যবসায়ীরা এবং অন্যান্য দেশের লোকেরা প্রায় সময় স্বর্ণ কিনতে চাইলে দুবাই থেকে সোনা কিনে থাকে। বাংলাদেশের তুলনায় দুবাইয়ের স্বর্ণের দাম অনেকটাই কম। আপনি 18 ক্যারেট থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৪ ক্যারেট পর্যন্ত খাঁটি সোনা দুবাই থেকে কিনতে পারবেন। প্রায় প্রত্যেকটা দেশেই প্রতিনিয়ত স্বর্ণের চাহিদা বেড়েই চলেছে।

স্বর্ণ অতি মূল্যবান ধাতু। বিশেষ করে মেয়েদের কোন অলংকার তৈরি করার জন্য স্বর্ণের ধাতু ব্যবহার করে থাকেন। স্বর্ণ দিয়ে আপনি সুন্দর ডিজাইন করে যে কোন অলংকার তৈরি করতে পারবেন। সর্বোচ্চ ২৪ ক্যারেট সোনা ভালো হলেও অলংকার তৈরির জন্য ২২ ক্যারেট স্বর্ণ উপযোগী। আপনারা যারা দুবাইয়ের বিভিন্ন ধরনের সোনার দাম জানতে চাচ্ছেন, তারা আমাদের এই সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে আজকে দুবাই সোনার দাম কত জানতে পারবেন।  

আজকে দুবাই সোনার দাম কত

আপনারা অনেকেই দুবাই থেকে সোনা সংগ্রহ করতে চাচ্ছেন। আবার বাংলাদেশে অনেক প্রবাসী ভাইয়েরা আছে তারা দুবাইয়ে কাজের উদ্দেশ্যে বসবাস করে। অথবা কিছু মানুষ আছে তারা ভ্রমন করার উদ্দেশ্যে দুবাই আরব আমিরাতে যাচ্ছে। দুবাই দেশ তারা নিজিস্ব খনন করা স্বর্ণ বিভিন্ন দেশে সাপ্লাই করে থাকে। বাংলাদেশের স্বর্ণের দামের সাথে দুুবাই এ অনেক টাকা পার্থক্য রয়েছে। প্রতিনিয়ত বিভিন্ন দেশের স্বর্ণের দাম বৃদ্ধি হয়েছে।

গত কয়েকদিনের তুলনায় আবার নতুন করে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে। বাংলাদেশেও জুয়েলার্স সমিতি থেকে আবারও স্বর্ণের  নতুন দাম নির্ধারণ করে দিয়েছেন। অনেকেই আছেন দুবাইয়ের আজকের সোনার দাম জানতে চান। কারণ দুবাই থেকে স্বর্ণ কিনলে একেবারে কম দামে বিভিন্ন ক্যারেটের স্বর্ণ কেনা যায়। 

আপনি দুবাই থেকে ২১ ক্যারেট থেকে 24 ক্যারেট পর্যন্ত শতভাগ খাঁটি সোনা কিনতে পারবেন। ক্যারেট অনুযায়ী স্বর্ণের দাম কম বেশি হয়ে থাকে। দুবাই বর্তমান সর্বনিম্ন প্রতি গ্রাম AED 184.25 থেকে সর্বোচ্চ ২৪ ক্যারেট ১ গ্রাম স্বর্ণের দাম AED 240 দিরহাম।  বিভিন্ন ক্যারেটের স্বর্ণের দুবায়ের দাম এবং বাংলাদেশি টাকায় কনভার্ট করলে কত হবে সেটা জানতে হলে আমাদের নিচে লেখাগুলো মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন।

১ ভরি সোনার দাম কত ২০২৪ দুবাই

বাংলাদেশের অনেক মানুষ দুবাই বসবাস করে। আবার কিছু লোক আছে তারা ভরি হিসাব করে স্বর্ণ কেনাবেচা করে থাকে। আপনি যদি প্রয়োজনীয় কাজের জন্য অথবা বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ১ ভরি সোনা কেনার দরকার পড়ে। বিশেষ করে বিয়েতে স্বর্ণের জিনিস বেশি উপহার দেয়। অনেকেই আছেন বাংলাদেশে কত টাকা খরচ হবে ১ ভরি সোনা তে। কারণ দুবাই থেকে সোনা কিনলে অনেক টাই কম পাওয়া যায়। দুবাই থেকে কয়েকটি ক্যারেট এর সোনা পাওয়া যায়। ক্যারেট অনুযায়ী সোনার দাম কম বেশি হয়। দুবাইয়ে ১৮ ক্যারেট এবং ২২ ক্যারেট ও ২৪ ক্যারেট খাঁটি সোনা পাওয়া যায়। বর্তমান দাম অনুযায়ী 

  • দুবাই ১ ভরি ১৮ ক্যারেট সোনার দাম AED ২১৪৫.৪০ এবং বাংলাদেশি টাকা কনভার্ট করলে হবে ৬৪,৪৩২ টাকা ৭৮ পয়সা। 
  • দুবাই ১ ভরি ২২ ক্যারেট সোনার দাম AED ২৫৯২.৩২৪ এবং বাংলাদেশি টাকা কনভার্ট করলে হবে ৭৭,৮৫৪ টাকা ৯৯ পয়সা।
  • দুবাই ১ ভরি ২৪ ক্যারেট সোনার দাম AED ২৭৯৯.৩৬ এবং বাংলাদেশি টাকা কনভার্ট করলে হবে ৮৪,০৭২ টাকা ৮৮ পয়সা।

দুবাই গোল্ড রেট ২০২৪

বাংলাদেশ থেকে দুবাইয়ে গোল্ড গোল্ড এর দাম অনেকটাই কম। তারা প্রত্যেকটা দেশেই গোল্ড সাপ্লাই দিয়ে থাকে। অনেকে আছেন বাংলাদেশ থেকে দুবাই যাওয়ার কথা ভাবতেছেন। আবার কিছু ব্যবসায়ী ভাইয়েরা আছে তারা দুবাইয়ের গোল্ড রেট জানতে চায়। কারণ তারা দুবাই থেকে স্বর্ণ আমদানি করে। প্রতিনিয়ত গোল্ড এর চাহিদা বাড়ার কারণে ব্যবসায় অনেকটাই লাভবান হচ্ছে। এজন্য যারা বর্তমান দুবাইয়ের স্বর্ণ সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। তাদের উদ্দেশ্যেই এর এই পোস্টটি তৈরি করা হয়েছে। দুবাইয়ে কয়েকটি ক্যারেটের গোল্ড পাওয়া যায়। বর্তমান আজকের গোল্ড রেট অনুযায়ী 

  1. ২৪ ক্যারেট প্রতি গ্রাম গোল্ডের রেট AED ২৪০ দিরহাম।
  2. ২২ ক্যারেট প্রতি গ্রাম গোল্ডের রেট AED ২২২.২৫ দিরহাম।
  3. ১৮ ক্যারেট প্রতি গ্রাম গোল্ডের রেট AED ১৮৪.২৫ দিরহাম।

২২ ক্যারেট সোনার দাম দুবাই

অলংকার তৈরি করার জন্য সবচেয়ে উপযোগী হলো ২২ ক্যারেট স্বর্ণ। প্রত্যেকটা দেশেই ২২ ক্যারেট স্বর্ণের অনেকটাই চাহিদা বেশি। বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষ কোন অলংকার তৈরি করতে চাইলে ২২ ক্যারেট স্বর্ণ দিয়ে অলংকার তৈরি করে। কারন ২২ ক্যারেট স্বর্ণ তে খাঁটি সোনা পাওয়া যায়। দুবাইয়ে অনেকটাই কম দামে ২২ ক্যারেট স্বর্ণ কিনতে পারবেন।

এজন্য কিছু মানুষ আছে তারা দুবাইয়ের ২২ ক্যারেট স্বর্ণের দাম জানতে চায়। আপনি দুবাই থেকে ২২ ক্যারেট স্বর্ণ কিনতে চাইলে অবশ্যই বাংলাদেশ থেকে কম দামে কিনতে পারবেন। বর্তমান দুবাই ২২ ক্যারেট সোনার দাম বিক্রি হচ্ছে AED ২২২.২৫ দিরহাম। এবং বাংলাদেশি টাকা এক্সচেঞ্জ করলে হবে ৭৭ হাজার ৮৫৪ টাকা ৯৯ পয়সা।

দুবাই গোল্ড প্রাইস ইন বাংলাদেশ

অনেক বাংলাদেশি মানুষরা আছে তারা দুবাইয়ের স্বর্ণের দাম বাংলাদেশে কত টাকা হয় সে সম্পর্কে জানতে চায়। বাংলাদেশে বিভিন্ন প্রসেসিং করে স্বর্ণ আনতে অনেকটাই খরচ বেশি পরে। এজন্য বিক্রি করার সময় তারা অন্যান্য দেশের থেকে একটু বেশি দামেই বিক্রি করে। আপনি যদি দুবাই গোল্ড প্রাইস বাংলাদেশে কত টাকা হয় সে সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আমাদের এই লেখাটির মাধ্যমে বিভিন্ন তথ্য জানতে পারবেন। কারন আমরা সম্পূর্ণ আপডেট গোল্ড প্রাইসের তথ্য নিয়ে এসেছি। দুবাইয়ের আজকের গোল্ড প্রাইস অনুযায়ী 

  • ২৪ ক্যারেট বাংলাদেশে ১ ভরি গোল্ড প্রাইস ৮৪ হাজার ৭২ টাকা। এবং ১ গ্রাম স্বর্ণের দাম ৭ হাজার ২০৭ টাকা। ১ আনা ৫ হাজার ২৫৪ টাকা।  
  • ২২ ক্যারেট বাংলাদেশে ১ ভরি গোল্ড প্রাইস ৭৭ হাজার ৮৫৪ টাকা। এবং ১ গ্রাম স্বর্ণের দাম ৬ হাজার ৬৭৪ টাকা। ১ আনা ৪ হাজার ৮৬৫ টাকা।

1 গ্রাম সোনার দাম কত দুবাই

দেশের বিভিন্ন স্থানে স্বর্ণ সবসময় গ্রাম হিসাব করে বেচাকেনা করে থাকে। বাংলাদেশের অনেক মানুষ আছে তারা গ্রাম হিসাবে স্বর্ণের দাম যাচাই করে। দুবাই থেকে আপনি 1 গ্রাম স্বর্ণ কিনতে চাইলে অনেক কম টাকা স্বর্ণ কিনতে পারবেন। বর্তমান যারা দুবাই বসবাস করেন অথবা বাংলাদেশ থেকে দুবাই যাওয়ার কথা ভাবতেছেন বিশেষ করে তাদের জন্য এই পোস্টটা অনেক উপকারী।  কারণ আপনি আমাদের এই পোষ্টের মাধ্যমে দুবাইয়ের এক গ্রাম বিভিন্ন ক্যারেটের সোনার দাম জানতে পারবেন। 

  • 1 গ্রাম ২৪ ক্যারেট সোনার দাম ২৪০ দিরহাম। 
  • 1 গ্রাম ২২ ক্যারেট সোনার দাম ২২২.২৫ দিরহাম।
  • 1 গ্রাম ২১ ক্যারেট সোনার দাম ২১০ দিরহাম।  
  • 1গ্রাম ১৮ ক্যারেট সোনার দাম ১৮৪.২৫ দিরহাম।

দুবাই ২২ ক্যারেট ১ ভরি সোনার দাম কত

বাংলাদেশে লোকেরা ভরি হিসাব করে স্বর্ণ কিনে থাকে। অনেক বাংলাদেশী লোক আছে তারা দুবাই থেকে ২২ ক্যারেট এক ভরি স্বর্ণ কিনতে চায়। কিন্তু আন্তর্জাতিক ডলার রেট অনুযায়ী প্রত্যেকটা দেশেই স্বর্ণের দাম ওঠানামা করে। এজন্য তাদের সম্পূর্ণ সঠিক স্বর্ণের মূল্য জানা থাকে না। কিছু সময় আছে দোকানদাররা বেশি লাভবান হওয়ার জন্য এক ভরি স্বর্ণের দাম বেশি নিয়ে থাকে। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে দুবাইয়ের রেট অনুযায়ী ২২ ক্যারেট স্বর্ণের দাম আলোচনা করেছি। বর্তমান কিনতে চাইলে আপনার খরচ পড়বে AED ২৫৯২.৩২ দিরহাম । বাংলাদেশি টাকায় ৭৭ হাজার ৮৫৪ টাকা। 

দুবাই ২১ ক্যারেট সোনার দাম কত

অন্যান্য ক্যারেটের তুলনায় ২১ ক্যারেট স্বর্ণ এর  অনেকটাই চাহিদা বেশি। কারণ ২১ ক্যারেট স্বর্ণ দিয়েও বিভিন্ন অলংকার তৈরি করা যায়। ২২ ক্যারেট স্বর্ণ থেকে ২১ ক্যারেট স্বর্ণের দাম অনেকটাই কম। কিছু মানুষ আছে বাজেট কম থাকার কারণে ২১ ক্যারেট সোনার দাম জানতে চায়। দুবাইয়ে কম দামে কেনা সম্ভব। অন্যান্য দেশের তুলনায় দুবাই সবচেয়ে স্বর্ণের দাম কম। ভারতের পরে বিশ্বের দ্বিতীয় স্বর্ণ খনন এর দেশ বলা হয় দুবাই কে। বর্তমান দুবাই থেকে 1 গ্রাম ২১ ক্যারেট সোনা কিনতে চাইলে খরচ হবে ২১০ দিরহাম। বাংলাদেশি টাকা হবে ৬ হাজার ৩০৬ টাকা।

দুবাই ১ ভরি ২১ ক্যারেট স্বর্ণের দাম কত

অনেকই আছে তারা ২১ ক্যারেট সোনার মূল্য খুজে থাকে। আপনি যদি দুবাই থেকে ১ ভরি ২১ ক্যারেট স্বর্ণ কিনতে চান তাহলে অনেক সাশ্রয়ী দামে কেনা সম্ভব। বর্তমান দুবাই এর দাম অনুযায়ী ২১ ক্যারেট ১ ভরি স্বর্ণ কিন্তু চাইলে আপনার খরচ পড়বে AED ২৪৪৯.৪৪ দিরহাম । এবং বাংলাদেশি টাকা ৭৩ হাজার ৫৬৩ টাকা ৭৭ পয়সা।

দুবাই ১৮ ক্যারেট স্বর্ণের দাম কত

সবচেয়ে কম টাকায় ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ পাওয়া যায়। কারণ আপনি দুবাই থেকে ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ কিনতে চাইলে একবারে কম খরচে কিনতে পারবেন। ১৮ ক্যারেট স্বর্ণতে খাটি শত ভাগ সোনা পাওয়া যায় না। এবং এই স্বর্ণতে বিভিন্ন ধাতুর মিশ্রণ থাকে। অনেকই আছেন ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ দিয়ে বিভিন্ন জিনিস তৈরি করে থাকেন। এবং দুবাই থেকে ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ কেনার কথা ভাবতাছেন। কিছু লোক আছে দুবাই থেকে দেশে ফিরে আসার সময় ১৮ ক্যারট স্বর্ণ কিনে আনতে চায়। তখন তাদের সঠিক মূল্য জানার প্রয়োজন পড়ে। অর্থাৎ দুবাই ১৮ ক্যারেট স্বর্ণের দাম AED ২১৪৫.৪০ । বাংলাদেশি টাকায় হবে ৬৪,৪৩২ টাকা ৭৮ পয়সা।

দুবাই ১ গ্রাম ১৮ ক্যারেট স্বর্ণের দাম কত

বিভিন্ন বাইরের রাষ্ট্রে গুলোতে সব সময় গ্রাম হিসাব করে স্বর্ণ বিক্রি করে। আবার বাংলাদেশ থেকে অনেক মানুষ আছে দুবাই থেকে এক গ্রাম ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ কিনে আনতে চায়। কিছু সময় কোন অলংকার তৈরি করতে গেলে স্বর্ণ শট পড়ে তখন এক গ্রাম স্বর্ণ কিনে সে ঘাটতি পূরণ করে। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আজকের রেট অনুযায়ী দুবাইয়ের এক গ্রাম ১৮ ক্যারেট স্বর্ণের দাম উল্লেখ করেছি। অর্থাৎ বর্তমান দুবাই ১৮ ক্যারেট প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম AED ১৮৪.৮৫ দিরহাম। বাংলাদেশী টাকায় হবে ৫ হাজার ৫৫১ টাকা ৫৮ পয়সা।

আরব আমিরাতে সোনার দাম কত

অন্যান্য দেশের থেকে সংযক্ত আরব আমিরাতে অনেকটাই কম দামে স্বর্ণ কেনা যায়। সংযুক্ত আরব আমার হাতে অনেকগুলো শহর রয়েছে। বিশ্বের মধ্যে আরব আমিরাতে অনেকটাই সাশ্রয় দামে স্বর্ণ কেনা যায়। কারণ আরব আমিরাতে তারা নিজেরাই স্বর্ণ উৎপাদন করে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৮ তারিখ থেকে শুরু করে ২৪ ক্যারেট পর্যন্ত স্বর্ণ পাওয়া যায়। আপনি এক গ্রাম স্বর্ণ কিনতে চাইলে ১৮৪.৮৫ দিরহাম থেকে শুরু করে ২৪০ দিরহাম পর্যন্ত বাজেট রাখতে হবে।

বাংলাদেশের সাথে দুবাই স্বর্ণের দামের পার্থক্য

দুবাই এর সাথে বাংলাদেশে স্বর্ণের দাম অনেক টাই পার্থক্য রয়েছে। বাংলাদেশের অনেক ব্যবসায়ী আছে তারা স্বর্ণ কিনতে চাইলে দুবাই থেকে স্বর্ণ আমদানি করে থাকে। এবং বাংলাদেশে কিছু লোক আছে তারা দুবাই বসবাস করে। দুবাই থেকে আসার সময় স্বর্ণর কিনে আনে। অনেকেই জানতে চায় বাংলাদেশের স্বর্ণের দামের সাথে কত টাকা পার্থক্য। দুবাই থেকে স্বর্ণ কিনলে অনেক টাকা কমে স্বর্ণ কিনতে পারবেন। অর্থাৎ ১ ভরি স্বর্ণ পার্থক্য হিসাব করে পাওয়া গেছে প্রায় ২২ হাজার থেকে ২৫ হাজার টাকা। আপনি দুবাই থেকে স্বর্ণ কিনলে প্রায় ২৫ হাজার টাকা সাশ্রয়ী দামে ১ ভরি স্বর্ণ কিনতে পারবেন।

কত ক্যারেট সোনা সবচেয়ে ভালো

স্বর্ণ কেনার আগে অনেক মানুষের মনে প্রশ্ন থাকে কত ক্যারেট সোনা কিনলে সবচেয়ে ভালো হবে। বিভিন্ন মানুষের ভিন্ন ভিন্ন পছন্দ হয়ে থাকে। বাংলাদেশে কয়েকটি ক্যারেট এর স্বর্ণ পাওয়া যায়। তার মধ্যে ২৪ ক্যারেট স্বর্ণ সবচেয়ে ভালো। কিন্তু কেউ যদি বিভিন্ন অলংকার তৈরি করার জন্য স্বর্ণ কিনতে চান তাহলে ২২ ক্যারেট স্বর্ণ কিনতে হবে। কারণ ২২ ক্যারেট স্বর্ণ অলংকার তৈরি করার জন্য সবচেয়ে বেশি উপযোগী।

দুবাইয়ের সবথেকে বড় সোনার মার্কেট কোথায়

পৃথিবীতে প্রত্যেকটা দেশে স্বর্ণ কেনাবেচা করার মার্কেট রয়েছে। অনেকের মনে প্রশ্ন থাকে সবচেয়ে বড় সোনার মার্কেট কোনটি এবং কি কোথায় অবস্থিত। আপনারা জেনে অবাক হবেন যে সবচেয়ে বড় স্বর্ণের মার্কেট হলো দুবাইয়ে অবস্থিত। এবং দুবাইয়ের বড় স্বর্ণের মার্কেটের নাম হলো গোল্ড সুখ।

শেষ কথা

বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিয়ত অনেক মানুষ দুবাই চলে যাচ্ছে। এবং বাংলাদেশের অনেক মানুষ আছে তারা দুবাইয়ে বসবাস করে। তারা দেশে আসার সময় অনেকেই স্বর্ণ কিনে আনতে চান। কিন্তু প্রতিনিয়ত স্বর্ণের দাম কম বেশি হওয়ার কারণে আপডেট মূল্য জানা থাকে না। আপনারা যারা আজকে দুবাই সোনার দাম কত খুঁজতেছিলেন। আশা করি, আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে বিভিন্ন ধরনের দুবাইয়ের স্বর্ণের দাম জানতে পেরেছেন। আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে সম্পূর্ণ সঠিক তথ্য প্রদান করেছি। আপনার যদি আমাদের পোষ্ট টি পড়ে ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই ওয়েবসাইটি শেয়ার করে রাখুন। ধন্যবাদ


Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *