রোমানিয়া ভিসার দাম কত ২০২৪

রোমানিয়া হলো একটি ইউরোপ মহাদেশের রাষ্ট্র। সবারই স্বপ্ন রয়েছে ভালো কোনে রাষ্ট্রে যাওয়ার। এরমধ্যে অনেকেই আছেন ইউরোপ মহাদেশের মধ্যে রোমানিয়া রাষ্ট্রে যাওয়ার কথা ভাবতেছেন। রোমানিয়া যাওয়ার আগে অবশ্যই আপনাকে রোমানিয়া যাওয়ার বিভিন্ন খরচ সম্পর্কে জেনে রাখা উচিত। কারণ অনেক সময় দালাল অথবা এজেন্সির মাধ্যমে ভিসা করতে গিয়ে অনেক বেশি টাকা দিতে হয়। আবার অনেকেই আছেন রোমানিয়া যাওয়ার দেশ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য খুঁজে থাকেন। 

বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিয়ত অনেক মানুষ কোন কাজ অথবা ভ্রমন করার উদ্দেশ্যে রোমানিয়া যাচ্ছে। রোমানিয়া যাওয়ার আগে অবশ্যই আপনাকে বৈধ ভিসা করতে হবে। কারণ অনুমতি না নিয়ে আপনি কখনো অন্য দেশে যেতে পারবেন না। যারা নতুন বাংলাদেশ থেকে কোন কাজের উদ্দেশ্যে রোমানিয়া পাড়ি দিতে চাচ্ছেন, তারা রোমানিয়া ভিসার দাম কত সম্পর্কে কোন তথ্য জানেনা। আপনি আমাদের এই সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়লে রোমানিয়া সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানতে পারবেন।

রোমানিয়া ভিসার দাম কত

বাংলাদেশ থেকে এখন খুব সহজেই রোমানিয়া যাওয়ার ভিসা করা যায়। বর্তমানে রোমানিয়া যেতে হলে আপনাকে একটু বেশি টাকায় বাজেট থাকতে হবে। কারণ রোমানিয়া হলো ইউরোপ কান্ট্রির একটি রাষ্ট্র। অনেকেই বেশি টাকা ইনকাম করার জন্য অথবা ভ্রমন করার উদ্দেশ্যে রোমানিয়া যাওয়ার ভিসা করে। কিন্তু ভিসা করতে কত খরচ হবে এ সম্পর্কে অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করে থাকে। অবশ্যই আপনাকে রোমানিয়া যাওয়ার আগে ভিসার দাম সম্পর্কে জেনে নেওয়া দরকার।

কারণ কিছু প্রতারক দালাল অথবা এজেন্সি আছে তারা কাস্টমারদের থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা বেশি নিয়ে থাকে। আপনার যদি কোন নিকটস্থ আত্মীয়-স্বজন থাকে তাহলে কম টাকার মধ্যে আপনি রোমানিয়ার ভিসা করতে পারবেন। এবং বাংলাদেশ থেকে কোন এজেন্সির মাধ্যমে রোমানিয়ার ভিসা করতে আপনাকে আগে ক্যাটাগরি সিলেক্ট করতে হবে। কারণ ভিসার ক্যাটাগরি অনুযায়ী দাম কম বেশি হয়ে থাকে। বর্তমান রোমানিয়া যেতে চাইলে সর্বনিম্ন ২ লক্ষ ৫০ হাজার থেকে ১০ লক্ষ টাকার টাকার মধ্যে ভিসা পাওয়া সম্ভব।

রোমানিয়া ভিসার আবেদন

বর্তমান সময়ে কোন কিছু করতে গেলে অবশ্যই আপনাকে আবেদন করতে হবে। কারণ কোন কিছু আবেদন ছাড়া পাওয়া সম্ভব না। আপনি যদি রোমানিয়া যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে সরকারি এবং তাদের কিছু নিয়ম মেনে অনলাইনের মাধ্যমে অথবা এজেন্সির মাধ্যমে আবেদন করা যায়।

প্রতিবছর রোমানিয়া থেকে সরকারি সার্কুলার দিয়ে থাকে বিভিন্ন কাজের। আপনি সরকারি সার্কুলার অনুযায়ী অনলাইনের মাধ্যমে আপনি যে কাজে যাবেন সেই কাজের সম্পূর্ণ তথ্য এবং আপনার সম্পূর্ণ তথ্য দিয়ে ফরম পূরণ করে আবেদন করতে হবে। আপনি সব কিছু অনলাইনের মাধ্যমেই রোমানিয়া যাওয়ার আবেদন করতে পারবেন।

রোমানিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা যেতে কত টাকা লাগে

অনেকেই আছেন রোমানিয়ার ওয়ার্ক পারমিট ভিসা খুঁজে থাকেন। কারণ অন্যান্য ভিসার থেকে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা গেলে অনেকটাই বেতন বেশি পাওয়া যায়। এবং এই ভিসায় যেতে প্রথমত আপনাকে অন্যান্য ভিসার থেকে একটু বেশি টাকাই খরচ করতে হবে। প্রতি বছরের রোমানিয়া পারমিট ভিসায় বিভিন্ন দেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ করে থাকে।

আপনি যদি সরকারিভাবে ওয়ার্ক ভিসা পান তাহলে আপনার খরচ হবে প্রায় ৬ লক্ষ টাকা থেকে ৮ লক্ষ টাকা। এবং আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে কোন এজেন্সির মাধ্যমে রোমানিয়া যাওয়ার ভিসা করেন তাহলে অনেকটাই খরচ বেশি পড়বে। বর্তমান এজেন্সির মাধ্যমে রোমানের ভিসা করতে চাইলে ৯ থেকে ১০ লক্ষ টাকা খরচ হবে। 

রোমানিয়া সটুডেন্ট ভিসা যেতে কত টাকা লাগে

বিভিন্ন দেশ থেকে অনেকেই আছেন পড়াশোনা করার জন্য রোমানিয়ায় যেতে চাচ্ছেন। অথবা অনেকেই সরকারিভাবে স্কলারশিপ পেয়ে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা পেয়ে থাকেন। স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে চাইলে একটু কম খরচ এর রোমানিয়া যাওয়া যায়। এবং কি আপনি যদি সরকারিভাবে স্টুডেন্ট ভিসা পান তাহলে আপনি ২ লক্ষ থেকে আড়াই লক্ষ টাকার মধ্যে ভিসা পেয়ে যাবেন।

এবং বাংলাদেশ থেকে কোন এজেন্সির মাধ্যমে স্টুডেন্ট ভিসা করতে চাইলে আপনাকে একটু বেশি টাকা খরচ করতে হবে। বর্তমান সময়ে রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসার খরচ হবে ৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা থেকে ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা।

রোমানিয়া টুরেষ্ট ভিসা যেতে কত টাকা

কিছু মানুষ আছে তারা ভ্রমণ প্রিয় হয়ে। কারণ তাদের মূল লক্ষ্যই থাকে বিভিন্ন দেশে ভ্রমণ করার। এক দেশ থেকে অন্য দেশে ভ্রমণ করতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে অনুমোদন নিতে হবে। এজন্য আপনাকে কোন এজেন্সির মাধ্যমে রোমানিয়া টুরিস্ট ভিসা করতে হবে।

সবাই ঘুরতে যাওয়ার আগে কত টাকা খরচ হবে সে সম্পর্কে জানতে চায়। আপনি যদি রোমানিয়া ঘুরতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে টুরিস্ট ভিসা করতে হবে। বাংলাদেশ থেকে রোমানিয়া টুরিস্ট ভিসা করতে চাইলে আপনার খরচ হবে ৪ লক্ষ টাকা থেকে ৫ লক্ষ টাকা। 

রোমানিয়া গার্মেন্টস ভিসা যেতে কত টাকা লাগে

প্রতি বছরে বছরে সরকারি ভাবে রোমানিয়ার গার্মেন্টস এ শ্রমিক নিয়োগ করে। বিভিন্ন দেশ থেকে গার্মেন্টস এর কাজের জন্য বিভিন্ন লোক অনলাইনের মাধ্যমে এপ্লাই করে থাকে। সরকারিভাবে রোমানিয়া গার্মেন্টস ভিসা পেলে অনেকটাই খরচ কম হয়। অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের অনেকটাই প্রায়োরিটি বেশি থাকে।

কারণ অভিজ্ঞতা থাকলে আপনি একটু কম টাকার মাধ্যমে রোমানিয়া গার্মেন্টস ভিসা যেতে পারবেন। এবং আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে কোন দালাল বা এজেন্সির মাধ্যমে রোমানিয়া গার্মেন্টস ভিসা যেতে চাইলে ৬ লক্ষ টাকা থেকে ৭ লক্ষ টাকা খরচ হবে।

রোমানিয়া ড্রাইভিং ভিসা যেতে কত টাকা লাগে

ড্রাইভিং ভিসায় রোমানিয়া গেলে একটু বেশি টাকা ইনকাম করা যায়। কারণ অন্যান্য ভিসার থেকে ড্রাইভিং ভিসা একটু বেতন বেশি হয়ে থাকে। বাংলাদেশের অনেক ড্রাইভিং প্রশিক্ষণের লোক রয়েছে তারা বেশি টাকা ইনকাম করার জন্য রোমানিয়ায় যেতে চায়।

রোমানিয়া ড্রাইভিং ভিসা যাওয়ার আগে তারা কত টাকা খরচ হবে সে সম্পর্কে অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করে থাকে। এজিন্সির মাধ্যমে ড্রাইভিং ভিসা করলে অনেকটাই বেশি টাকা দিতে হবে। বর্তমান রোমানিয়া ড্রাইভিং ভিসা যেতে চাইলে আপনার খরচ হবে ৭ লক্ষ টাকা থেকে ৭ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা।

রোমানিয়া বেতন কত

কোন কাজ শুরু করার আগে অনেকেই আগে বেতন সম্পর্কে জানতে চায়। কারণ বেশি টাকা ইনকাম করার জন্যই সবাই বিভিন্ন কাজ করে থাকে। যারা নতুন করে রোমানিয়ায় যেতে চাচ্ছেন তারা সবাই অনলাইনে বেতন কত হবে সে সম্পর্কে জানতে চায়। ভিসা অনুযায়ী বেতন কম বেশি হয়ে থাকে।

যাদের কাজের অভিজ্ঞতা বেশি তারা সবসময়ই বেশি টাকা বেতন পায়। আপনি যদি রোমানিয়া যান, তাহলে আপনার সর্বনিম্ন বেতন হবে ৬০ হাজার থেকে ৮০ হাজার টাকা। এবং আপনার অভিজ্ঞতা যদি থাকে তাহলে ১ লক্ষ টাকা থেকে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা উপরেও বেতন তুলতে পারবেন।

রোমানিয়া যেতে কত বয়স লাগে 

ইউরোপ মহাদেশের মধ্যে রোমানিয়া যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে আগে বয়সের দিক খেয়াল রাখতে হবে। কারণ সরকারি নিয়ম অনুযায়ী রোমানিয়া যাওয়ার বয়স না হলে আপনি কখনো রোমানিয়ার ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন না। এজন্য আপনার অবশ্যই সর্বনিম্ন আইডি কার্ডে ১৮ বছর হতে হবে। কারণ আইডি কার্ডে এবং পাসপোর্ট এ ১৮ বছর না হলে আপনার ভিসা আবেদন কমপ্লিট হবে না। এবং কি আপনি রোমানিয়া প্রবেশ করতে পারবেন না।

রোমানিয়া যেতে কত টাকা লাগে

অনেক মানুষেরই প্রশ্ন থাকে রোমানিয়া যেতে কত টাকা লাগে। বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষের কাছে বেশি টাকা থাকে না। এজন্য যারা রোমানিয়া যাওয়ার কথা ভাবতেছেন তারা অনলাইনে আইডিয়া নেওয়ার জন্য কত টাকা খরচ হবে সে সম্পর্কে জানতে চান। কারণ সঠিক তথ্য জানলে কোন এজেন্সির মাধ্যমে ভিসা করতে গেলে প্রতারিত হওয়া থেকে বেঁচে যাবেন। বর্তমান সময়ে রোমানিয়া যেতে চাইলে আপনার খরচ পড়বে প্রায় ৪ লক্ষ টাকা থেকে ১০ লক্ষ টাকা।

রোমানিয়া টাকা বাংলাদেশে কত টাকা

আন্তর্জাতিক ডলার রেট অনুযায়ী বিভিন্ন দেশের টাকা কম বেশি হয়। কারণ যারা নতুন রোমানিয়ার যাওয়ার কথা ভাবতেছেন বিশেষ করে তারা রোমানিয়া টাকা এবং বাংলাদেশে কত টাকা হয় সে সম্পর্ক তথ্য জানতে চান। কারণ রোমানিয়ার অর্থনৈতিক অবস্থা যদি ভালো থাকে তাহলে টাকার মানটাও বৃদ্ধি পাবে।

কারণ টাকার মান সব সময় সেই দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা এবং ডলারের রেট কম বেশি হলে বিভিন্ন দেশের টাকার রেট কম বেশি হয়ে যায়। আজকের আপডেট তথ্য অনুযায়ী রোমানের এক টাকা সমান বাংলাদেশে ২৩ টাকা ৩৮ পয়সা।

রোমানিয়া ভিসা প্রসেসিং এজেন্সি

বাংলাদেশে কয়েকটি রোমানিয়া যাওয়ার এজেন্সি রয়েছে। কারো যদি নিকট আত্মীয় না থাকে তাহলে অবশ্যই আপনাকে কোন এজেন্সির মাধ্যমে রোমানিয়া যাওয়ার ভিসা করতে হবে। ভিসা প্রসেসিং করতে গেলে অবশ্যই আপনাকে এজেন্সির সাহায্য নিতে হবে। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই আপনি ভিসা প্রসেসিং করতে পারবেন। কারণ এই দেশের মাধ্যমে ভিসা প্রসেসিং করতে গেলে অনেকটাই বেশি খরচ হয়।

আপনাকে সবসময় সাবধানতার সাথে এজেন্সির সাথে আলোচনা করতে হবে। কারণ অনেক প্রতারক এজেন্সি অথবা দালাল রয়েছে তারা মিথ্যায় আশ্রয় দিয়ে কাস্টমারদের কাছ থেকে অনেক টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এজন্য আপনাকে ভালো এজেন্সির মাধ্যমে যাচাই বাছাই করে রোমানের ভিসা প্রসেসিং করতে হবে।

রোমানিয়া ভিসা কি বন্ধ

নির্দিষ্ট একটি সময়ে রোমানের ভিসা বন্ধ করে দেয়। আপনি চাইলে যে কোন সময়ে রোমানিয়ার ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন না। কারণ ইউরোপ মহাদেশে যেতে চাইলে আপনাকে একটু কষ্ট করে যেতে হবে। প্রতিবছরের সরকারি ভাবে রোমানিয়া যাওয়ার সুযোগ থাকে। যখন তাদের বিভিন্ন কাজের জন্য শ্রমিক প্রয়োজন হয় রোমানিয়া সরকার অনলাইনের মাধ্যমে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

সেখান থেকে চাইলে আবেদন করে আপনি রোমানিয়া ভিসা পেয়ে যাবেন। আবার কিছু লোক আছে রোমানিয়ার ভিসা বন্ধ থাকার কারণে অবৈধ পথে রোমানিয়ায় যাচ্ছে। অবৈধ পথে রোমানিয়া যাওয়া থেকে বিরত থাকাই ভালো। রোমানিয়ার সরকার অনলাইনের মাধ্যমে যখন বৈধভাবে শ্রমিকের জন্যনিয়োগ করবে তখন আপনি আবেদন করে ভিসা পেতে পারেন।

রোমানিয়া যেতে কি কি ডকুমেন্টস লাগে

বৈধভাবে রোমানিয়ার ভিসা করতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে কিছু ডকুমেন্টস জমা দিতে হবে। এই প্রয়োজনে ডকুমেন্টস ছাড়া আপনি কখনো রোমানিয়া ভিসা আবেদন করতে পারবেন না। যারা নতুন রোমানিয়ার ভিসার জন্য আবেদন করতে চাচ্ছেন তারা আমাদের এই লেখাগুলো দেখে আগে থেকেই ডকুমেন্টস রেডি করে রাখবেন। তাহলে দেখে নিন রোমানিয়া যেতে কি কি ডকুমেন্টস লাগে।

  1. আপনার ছয় মাস মেয়াদ সম্পূর্ণ সচল পাসপোর্ট। 
  2. দুই কপি রঙিন পাসপোট সাইজের ছবি। 
  3. আপনার মেডিকেল সার্টিফিকেট। 
  4. আপনার ব্যাংক স্টেটমেন্ট। 
  5. আপনার অনলাইন জন্ম নিবন্ধন অথবা ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি (১৮ বছর হতে হবে) 
  6. পুলিশ ক্লিয়ারেন্স। 
  7. কর্নার ভ্যাকসিনের ফটোকপি। 
  8. আপনার যে কাজে অভিজ্ঞতা রয়েছে অভিজ্ঞতার সার্টিফিকেট।

শেষ কথা

বিভিন্ন মানুষের স্বপ্ন রয়েছে রোমানিয়া যাওয়ার। কিন্তু সবাই রোমানিয়া যাওয়ার আগে কত টাকা খরচ হবে সে সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। ইতিমধ্যে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে রোমানিয়া দেশ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানিয়েছি। আশা করি, আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে রোমানিয়া ভিসার দাম কত জানতে পেরেছেন। প্রতিনিয়ত আমরা এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিভিন্ন সঠিক তথ্য প্রদান করে থাকি। আপনি আমাদের ওয়েবসাইটটি শেয়ার করে রাখলে সব সময় আপডেট তথ্য জানতে পারবেন। ধন্যবাদ

Leave a Comment