বর্তমান রডের দাম কত ২০২৪

কোন বিল্ডিং অথবা কলকারখানা ফ্যাক্টরি নির্মাণ করতে গেলে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো রডের ব্যবহার। কারণ রড ছাড়া কোন বড় ধরণের বিল্ডিং তৈরি করা যায় না। বাসা বাড়িতে এক তলা থেকে ২ তলা বিল্ডিং নির্মাণ করতে গেলেও আপনার রডের প্রয়োজন হবে। বর্তমান সময়ে বিল্ডিং করার চাহিদা অনেকটাই বেড়ে গেছে। সবাই কোন ঘর নির্মাণ করতে গেলে রড দ্বারা বিল্ডিং করে ঘর বাড়ি নির্মাণ করে। অনেকে আছে তারা বাসা বাড়ি নির্মাণ করতে গেলে রডের খরচ কত পড়বে সে সম্পর্কে একটা আইডিয়া নিতে চায়। কারণ সব জিনিসের দাম জেনে রাখা ভালো। 

বাংলাদেশে কয়েকটি বড় ধরনের রড কোম্পানী রয়েছে। অনেকেরই ভিন্ন ভিন্ন কোম্পানির রড পছন্দ হয়ে থাকে। আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে কয়েকটি কোম্পানির রডের আপডেট মূল্য জানানোর চেষ্টা করেছি। বর্তমান বিশ্ববাজারে প্রায় সব জিনিসের দাম উর্ধ্বগতি হয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রতিমাসেই রডের দাম বৃদ্ধি হচ্ছে। যারা নতুন ঘরবাড়ি করার কথা ভাবতেছেন তাদের উদ্দেশ্যে আমাদের এই পোস্টে লেখা হয়েছে। আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়লে আজকের রডের দাম কত জানতে পারবেন।

রডের দাম ২০২৪

প্রতিনিয়ত রডের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত মাসের তুলনায় এই মাসে প্রত্যেকটা কোম্পানির রডের দাম বেড়েছে। আমাদের বাসা বাড়ি এবং বড় বিল্ডিং করতে রডের প্রয়োজন হয়। আবার বড় কোন প্রতিষ্ঠান তৈরি করার জন্য অথবা কোন ব্রিজ তৈরি করতে গেলে শক্তিশালী করার জন্য অবশ্যই আপনাকে রড ব্যবহার করতে হবে। কারণ রড ছাড়া কোন বিল্ডিং অথবা ব্রিজ এগুলো তৈরি করলে এক নিমিষেই ভেঙ্গে যেতে পারে। বাংলাদেশের সুনামধন্য কিছু রড কোম্পানি রয়েছে। 

অনেকেই অনলাইনের মাধ্যমে আপডেট রডের দাম জানার চেষ্টা করে। কারণ কিছু অসাধু ব্যবসায়ী রয়েছে তারা বেশি লাভবান হওয়ার জন্য কাস্টমারদের সাথে মিথ্যার আশ্রয় নেয়। এজন্য আপনাকে রড কেনার আগে অবশ্যই আপডেট মূল্য জেনে রাখা উচিৎ। বিভিন্ন কোম্পানি হিসেবে রডের মূল্য কম বেশি হয়ে থাকে। বর্তমান ১ টন রড কিনতে চাইলে ৮৯ হাজার থেকে ৯৬ হাজার টাকা বাজেট রাখতে হবে। আপনি আমাদের নিচের লেখাগুলো পড়লে কোম্পানি হিসেবে বিভিন্ন রকম রডের দাম জানতে পারবেন।

আজ রডের দাম কত

বিল্ডিং তৈরি করার জন্য রড একটি মহামূল্যবান জিনিস। কারণ রড ছাড়া শক্তভাবে কোন বিল্ডিং তৈরি করা যায় না। এজন্য অনেকেই বড় মসজিদ মাদ্রাসা অথবা প্রতিষ্ঠান তৈরি করতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে রড দ্বারা বিল্ডিং তৈরি করতে হবে। আবার রাস্তাঘাটে বড় ব্রিজ তৈরি করতে চাইলে রডের প্রয়োজন হয়। এজন্য অনেক মানুষ আছে কিছু তৈরি করার আগে রডের দাম সম্পর্কে জানতে চায়।

প্রতিনিয়ত রডের দাম কম বেশি হওয়ার কারণে আজকের মূল্য জানা থাকে না। এজন্য আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে সম্পূর্ণ আপডেট তথ্য উল্লেখ করেছি। আপনারা জানেন কোম্পানি অনুযায়ী ভিন্ন ভিন্ন দাম হয়ে থাকে। সবাই টন হিসাব করে রড বিক্রি করে। আপনার পছন্দ অনুযায়ী যে কোন কোম্পানির রড কিনতে চাইলে ১ টন রড  ৮৯,০০০ হাজার থেকে ৯৬,০০০ হাজার টাকা কিনতে পারবেন।

১ কেজি রডের দাম কত

কিছু মানুষ আছে খুচরা ভাবে রড কিনে থাকে। অল্প কোন বিল্ডিং এর কাজের জন্য ১ কেজি ধরে রড কিনতে চায়। আবার অনেকেই ধারণা নেওয়ার জন্য ১ কেজি রডের দাম অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করে। ১ কেজি রডের দাম জানতে পারলে আপনি যে কোন অংকের হিসাব করতে পারবেন। রডের মধ্যে কয়েকটি কোয়ালিটি এবং ভিন্ন ভিন্ন কোম্পানী রয়েছে।

এক একটি কোম্পানি ভিন্ন ভিন্ন দামে রডের কেজি বিক্রি করে থাকে। এজন্য আপনাকে রড কিনতে হলে আগে কোম্পানি সিলেক্ট করতে হবে। আগের বছরের তুলনায় এইবার প্রতি রডে ১৫ থেকে ১৮ টাকা বেড়েছে। বর্তমান 1 কেজি রডের মূল্য ৮৯ টাকা থেকে শুরু করে ৯৬ টাকা পর্যন্ত রয়েছে। আপনার পছন্দ অনুযায়ী ভালো কোম্পানির রড দেখে কিনতে পারবেন।

রডের দাম কি কমবে

বর্তমান প্রেক্ষাপট অনুযায়ী রডের দাম কমানোর কোন সম্ভবনা নেই। কারণ ধীরে ধীরে প্রত্যেক দ্রব্যমুল্য দাম বৃদ্ধি হচ্ছে। কারণ দেশের অর্থনিতিক অবস্থা বিবেচনা করে বিভিন্ন জিনিসের দাম উঠানামা করে। গত কিছুদিনের তুলনায় প্রতি টন রডের দাম অনেকটাই বৃদ্ধি হয়েছে। যতদিন বিশ্ব বাজারে বিভিন্ন জিনিসের দাম বৃদ্ধি হবে তোতদিন রডের দাম ও বৃদ্ধি হতে থাকবে। এজন্য গত কয়েক দিনের মধ্যে রডের দাম কমানোর সম্ভাবনা নেই। সামনে ধীরে ধীরে আরো রডের দাম বৃদ্ধি হতে পারে।

বাংলাদেশের রড কম্পানির তালিকা

বাংলাদেশের মধ্যে বড় কয়টি রড কোম্পানী রয়েছে। প্রতিনিয়ত এই কোম্পানিগুলো থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে রড সাপ্লাই করে থাকে। বিভিন্ন মানুষ অনলাইনের মাধ্যমে রডের কোম্পানির নাম জানার চেষ্টা করে। এই কোম্পানির রড দিয়ে যেকোনো বড় ধরণের কাজ করতে পারবেন। তাহলে দেখে নিন বড় ধরনের রড কোম্পানির নামগুলোঃ

  1. BSRM রড কোম্পানি।
  2. AKS রড কোম্পানি। 
  3. KSRM রড কোম্পানি।
  4. RRM রড কোম্পানি। 
  5. GPH রড কোম্পানি। 
  6. সিমা স্টিল রড কোম্পানি। 
  7. জিপিএইচ ইস্পাত রড কোম্পানি। 
  8. বন্দর স্টিল রড কোম্পানি। 
  9. আনোয়ার ইস্পাত রড কোম্পানি। 

Aks রডের আজকের দাম ২০২৪

বাংলাদেশে Aks রডের কোম্পানি অনেকটাই জনপ্রিয় হয়েছে। এই রড কোম্পানি চট্টগ্রামে অবস্থিত। এরর দিয়ে আপনি যেকোন বড় ব্রিজ এবং কি বড় ফ্যাক্টরি কলকারখানা এবং বিল্ডিং অনায়াসে তৈরি করতে পারবেন। অনেক ঝুঁকিমুক্তভাবে এবং শক্তিশালী বিল্ডিং তৈরি করা সম্ভব।

এজন্য অনেকে বিল্ডিং তৈরি করার আগে একেএস কোম্পানির রড খুঁজে থাকে। বাংলাদেশে একেএস কোম্পানি রড অনেকটা চাহিদা বেশি হওয়ার কারণে আগের মাসের তুলনায় এই মাসে অনেকটাই বৃদ্ধি হয়েছে। এখন ১ টন Aks রড কিনতে চাইলে ৯৫.৫০০ টাকা পরবে। এবং প্রতি ১ কেজি Aks রডের দাম পড়বে ৯৫ টাকা ৫০ পয়সা।

BSRM রডের আজকের দাম

অন্যান্য রডের থেকে সবচেয়ে দামি রড হল বিএসআরএম রড। অনেকের দীর্ঘস্থায়ী বিল্ডিং তৈরি করার জন্য দামি রড ব্যবহার করে থাকে। বি এস আর এম কোম্পানি অনেকটাই শক্তিশালী ভেবে রড তৈরি করে থাকে। আপনি এই রড দিয়ে যে কোন কাজ করতে পারবেন। বড় ব্রিজ থেকে শুরু করে যে কোন বিল্ডিং এ BSRM রড ব্যবহার করতে পারবেন।

অনেকেই এই কোম্পানির বর্তমান মূল্য জানার চেষ্টা করে। আগের তুলনায় বি এস আর এম রডের দাম প্রতি টনে ২০০০ টাকা বৃদ্ধি হয়েছে। আজকের দাম অনুযায়ী বিএসআরএম ১ টন রডের দাম ৯৭,৫০০ টাকা। এবং ১ কেজি রড এর দাম পড়বে ৯৭ টাকা ৫০ পয়সা।

GPH রডের আজকের দাম

অনেকের কাছে জিপিএইচ রড অনেকটাই জনপ্রিয়। নতুন কোম্পানি হিসেবে আধুনিক প্রযুক্তিতে উন্নত মানের রড তৈরি করে থাকে। নিজ বাসা বাড়ির জন্য এবং শিল্প কারখানা তৈরি করার জন্য ব্যবহার জিপিএইচ রড খুবই উপযোগী। গত দুই থেকে তিন সপ্তাহের তুলনায় এই রডের দাম ১ হাজারের উপরে বৃদ্ধি হয়েছে।

কিছু মানুষ আছে তারা বর্তমান GPH রডের মূল্য জানতে চায়। আজকে আমরা আপনাদের সম্পূর্ণ আপডেট মূল্য জানিয়েছি। আজকের GPH রড এর মূল্যে নির্ধারণ করা হয়েছে ৯৪,৫০০ টাকা। এবং ১ কেজি জিপিএইচ রডের দাম পরবে ৯৪ টাকা ৫০ পয়সা।

KSRM রডের আজকের দাম

বাংলাদেশে নতুন করে KSRM কোম্পানি অনেক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এই রড দিয়ে আপনি যে কোন কাজ করতে পারবেন। অনেকেই কেএসআরএম রডের মূল্য জানতে চায়। এই প্রতিষ্ঠানটি মূলত ১৯৫২ সাল থেকে বি এস আর এম এর সাথে যৌথভাবে ভাবে ব্যবসা শুরু করেছিল। এরপর তারা আলাদা হয়ে কেএসআরএম নামে পরিচিত লাভ করে। অনেকেই কে এসআরএম রডের দাম জানতে চায়। বর্তমান সময়ে এক টন কেএসআরএম রড কিনতে চাইলে আপনার খরচ পড়বে ৯৬,৫০০ টাকা। এবং ১ কেজি রডের দাম পড়বে ৯৬ টাকা ৫০ পয়সা।

RRM রডের আজকের দাম

এই RRM কোম্পানি বাংলাদেশে অনেকটাই জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এবং কি দেশের পাশাপাশি বিদেশেও তারা পণ্য দিয়ে থাকে। বিদেশেও এই কোম্পানির রড অনেকটাই জনপ্রিয়। আপনি অনায়াসে এবং নির্ভয়ে এই কোম্পানির রড ব্যবহার করে ব্রিজ এবং যে কোন বিল্ডিং তৈরি করতে পারবেন। আগের মাসের তুলনায় এ মাসে আর আর এম রডের দাম অনেকটাই বেড়ে গেছে। বর্তমান মূল্য অনুযায়ী ১ টন আরআরএম রডের মূল্য ৯৬,৫০০ টাকা। এবং এক কেজি RRM রডের মূল্য ৯৬ টাকা ৫০ পয়সা।

রডের বাজার দরের তালিকা

প্রতিনিয়ত রডের দাম কম বেশি হওয়ার কারণে আমাদের সব সময় আপডেট মূল্য জানতে হয়। কারন আপডেট মূল্য না জানা থাকলে কিছু দোকানে রড কিনতে গেলে অনেকটাই দাম বেশি দিয়ে কিনতে হয়। এজন্য আপনাদেরকে বর্তমান বিভিন্ন ধরনের রডের বাজারের মূল্য তালিকা প্রদান করেছি। দেখে নিন আজকের রডের দর। 

রডের নাম ১ কেজি রডের দাম ১ টন রডের দাম 
BSRM ৯৭ টাকা ৫০ পয়সা ৯৭,৫০০ টাকা 
AKS৯৫ টাকা ৫০ পয়সা ৯৫,৫০০ টাকা 
RRM৯৬ টাকা ৫০ পয়সা ৯৬,৫০০ টাকা 
BSI৯৪ টাকা ৯৪,০০০ টাকা 
KSRM৯৬ টাকা ৫০ পয়সা ৯৬,৫০০ টাকা 
JSRM ৯২ টাকা ৯২,০০০ টাকা 
RSM৯৩ টাকা ৫০ পয়সা ৯৩,৫০০ টাকা 
PHP Steels ৯৩ টাকা ৫০ পয়সা ৯৩,৫০০ টাকা 
HI teck৯১ টাকা ৫০ পয়সা ৯১,৫০০ টাকা 

রহিম স্টিলের রডের আজকের দাম

রহিমের স্টিল কোম্পানি রডের পাশাপাশি দ্বারা বিভিন্ন পণ্য তৈরি করে থাকে। এই রড তৈরি করে তারা বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে সেল দিচ্ছে এবং সব মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এই রহিম স্টিল কোম্পানির রড যথেষ্ট পরিমাণে ভালো। এজন্য অনেকেই অনলাইনে রহিম স্টিল রডের দাম খুঁজে থাকে। বর্তমান এক টন রহিমের স্টিল রড বিক্রি হচ্ছে প্রায় ৯০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা। হঠাৎ করে কোনো কারণে দাম একটু কম বেশি হতে পারে।

আনোয়ার ইস্পাতের আজকের দাম

আনোয়ার ইস্পাত বাংলাদেশে ১৮৩৪ সালে থেকে এই প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু করে। এ আনোয়ার কোম্পানির রড এবং অন্যান্য পণ্যগুলো অনেকটাই জনপ্রিয়। তারা রডের পাশাপাশি ঘরের বিভিন্ন জিনিস তৈরি করে থাকে। অনেকেই আনোয়ার ইস্পাতের রডের দাম জানতে চায়। বর্তমান মূল্য অনুযায়ী ১ টন আনোয়ার ইস্পাতের রডের মূল্য ৯৬ হাজার টাকা। এবং ১ কেজি আনোয়ার ইস্পাতের রোডের দাম ৯৬ টাকা।

১ রড সাধারণত কত ফুট লম্বা হয়

কিছু মানুষের সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানার চেষ্টা করে। অনেকেই খুঁজে থাকে একটি রড সাধারণত কত ফুট লম্বা হয়। যারা নতুন ঘরবাড়ি করার জন্য রড কেনার কথা ভাবতেছেন, বিশেষ করে তারা এবার সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য খুঁজে থাকে। অর্থাৎ আপনি যদি একটি রড কেনেন তাহলে আপনার রডটি লম্বা থাকবে ৩৯ ফুট। অর্থাৎ একটি রড সাধারণত ৩৯ ফুট লম্বা হয়।

শেষ কথা

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে বিভিন্ন কোম্পানির রডের দাম সম্পর্কে জানিয়েছি। ইতিমধ্যেই আপনি আমাদের পোস্টটি পড়ে কয়েক রকমের রড সম্পর্কে আইডিয়া পেয়েছেন। আশা করি, আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েছেন এবং বর্তমান রডের দাম কত জানতে পেরেছেন। আমরা এই পোষ্টে সম্পূর্ণ আপডেট তথ্য আলোচনা করেছি। আপনার যদি আমাদের এই পোস্টটি পড়ে ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনার আশেপাশের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে তাদের কে রডের দাম জানার সুযোগ করে দিন। ধন্যবাদ

Leave a Comment